ঢাকা২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১৩ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থ বানিজ্য
  2. আইন আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আবহাওয়া
  5. ইসলাম
  6. এভিয়েশন
  7. ক্যাম্পাস
  8. খেলা
  9. জব মার্কেট
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশবাংলা
  13. বিনোদন
  14. রাজনীতি
  15. লাইফস্টাইল
বিজ্ঞাপন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

তামিমদের লজ্জার রেকর্ডে সঙ্গী হলেন কোহলি, শীর্ষে সৌম্য

জনবার্তা প্রতিবেদন
জুন ২৮, ২০২৪ ৪:২২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

গতকাল রাতে ইংল্যান্ডকে গুড়িয়ে ফাইনালে পৌছেছে ভারত। আগামীকাল দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে শিরোপা লড়াইয়ে নামবে রোহিত শর্মার দল। এদিকে দল ফাইনালে ওঠলেও স্বস্তিতে থাকার কথা নয় বিরাট কোহলির। এবারের আসরে যে ব্যাট হাতে একেবারেই রান পাচ্ছেন না তিনি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সবথেকে বেশি রানের মালিক কোহলি। ১২১৬ রান করে তিনি আছেন এ তালিকার শীর্ষে। সংক্ষিপ্ত দরম্যাটের এ টুর্নামেন্টের সবশেষে ২০২২ সালের আসরে সবথেকে বেশি রান সংগ্রাহক ছিলেন তিনি। সেই কোহলিই কি না এবারের আসরে আছেন নিজের ছায়া হয়ে।

এবারের আসরে রোহিত শর্মার সঙ্গে ওপেনিংয়ে ব্যাট করেছেন কোহলি। ৭ ইনিংসে তিনি করেছেন সর্বসাকুল্যে ৭৫ রান। গতক্ল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিনি আউট হয়েছেন ৯ বলে ৯ রান করে। এবারের আসরে তিনি কেবল দুইটি ম্যাচেই ছুঁতে পেরেছেন দুই অঙ্ক, একটি বাংলাদেশের বিপক্ষে ৩৭, অপরটিতে আফগানিস্তানের বিপক্ষে করেছেন ২৪ রান। এছাড়া অস্ট্রেলিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে তিনি আউট হয়েছেন ০ রানে।

বাজে ব্যাটিংয়ে এবারের আসরে ৭ ইনিংসে তাঁর গড় কেবল ১০.৭১ গড়। টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এক আসরে ন্যূনতম পাঁচ ইনিংস ওপেন করেছেন এমন ব্যাটারদের মধ্যে কোহলির ১০.৭১ গড় তৃতীয় সর্বনিম্ন। আর এই তালিকায় প্রথম ৫ জনের মধ্যে তিনজনই বাংলাদেশের ক্রিকেটার, এ তালিকায় শীর্ষেও আছেন একজন বাংলাদেশ ক্রিকেটাররই।

টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এক আসরে ন্যূনতম পাঁচ ইনিংস ওপেন করেছেন এমন ব্যাটারদের সর্বনিম্ন ব্যাটিং গড় সৌম্য সরকারের। ২০১৬ সালের আসরে প্রথম ৫ ম্যাচে ওপেনিংয়ে নেমে ৪৮ রান করেছিলেন টাইগার এই ওপেনার, গড় ৯.৬০। এ তালিকায় দুইয়ে আছেন ওয়েলসি মাধেভেরে।

এরপরেই আছেন কোহলি। কোহলির পর চতুর্থ স্থানে বাংলাদেশের তরুণ ওপেনার তানজিদ তামিম। এবারের আসরে ৭ ইনিংসে করেছেন ৭৬ রান, গড় ১০.৮৫। আর এ তালিকায় ৫ নম্বরে আছেন তামিম ইকবাল। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের উদ্বোধনী আসরে তিনি ৫ ম্যাচ খেলে করেছিলেন ৫৬ রান।