ঢাকা১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১২ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থ বানিজ্য
  2. আইন আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আবহাওয়া
  5. ইসলাম
  6. এভিয়েশন
  7. ক্যাম্পাস
  8. খেলা
  9. জব মার্কেট
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশবাংলা
  13. বিনোদন
  14. রাজনীতি
  15. লাইফস্টাইল
বিজ্ঞাপন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নবী মুহাম্মদ সা.-এর আগমন নিয়ে যে সুসংবাদ দিয়েছিলেন ঈসা আ.

জনবার্তা প্রতিবেদন
জুলাই ৮, ২০২৪ ২:৫৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঈসা আ. বনী ইসরাঈলের শেষ নবী এবং হজরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আম্বিয়াকুলের শেষ নবী। তিনি বনী ইসরাঈলদের নবুয়তের শেষ প্রান্তে দাঁড়িয়ে খাতামুল আম্বিয়া আহমদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের আগমনের সুসংবাদ দিয়েছিলেন। এবং বলেছেন যে, তাঁর আগমনের পর থেকে নবুয়ত ও রিসালাতের দরজা বন্ধ হয়ে যাবে।

বুখারি শরিফের এক হাদিসে বিষয়টি চমৎকারভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। হজরত জুবায়ের বিন মুতইম রা. থেকে বর্ণিত। রাসূল সা. বলেন—

আমার বিভিন্ন নাম রয়েছে। আমি মুহাম্মদ, আমি আহমদ, আমি আল মাহী, যার মাধ্যমে আল্লাহ তায়ালা কুফর বিলুপ্ত করবেন। আমি আল হাশের, যার পদতলে মানুষ সমবেত হবে এবং আমি আল আকিব, অধিক সমাপনকারী, যার পরে আর কোনো নবী বা রাসূল আসবে না। (বুখারী: ৩৫৩২, ৪৮৯৬, মুসলিম: ২৩৫৪, তিরমিজি: ২৮৪০, মুসনাদে আহমাদ: ৪/৮০, ইবনে হিব্বান: ৬৩১৩)

আবু মুসা রা. বর্ণনা করেন, রাসূল সা. আমাদের সামনে তাঁর বিভিন্ন নাম উল্লেখ করেছেন। আমার যা স্মরণ আছে তা হলো এই যে, তিনি বলে— আমি মুহাম্মদ, আমি আহমদ, আমি আল হাশের, আমি আল মুকাফফী, আমি নবীউর রহমত, আমি নবীউত তাওবা এবং আমি মুলহামা।

মুহাম্মদ ইবনে ইসহাক রহ. কিছু সাহাবি থেকে বর্ণনা করেছেন, তারা বলেন— আমরা একবার রাসূল সা.-কে বললাম, হে আল্লাহর রাসূল সা.! আমাদেরকে আপনার সম্পর্কে কিছু বলুন। তিনি বললেন, আমি আমার পিতা ইবরাহিম আ.-এর দোয়ার সফল। আমি ঈসা আ.-এর সুসংবাদ। যখন আমার মা গর্ভবতী হলেন, তখন স্বপ্নে দেখলেন, তাঁর ভেতর থেকে এমন কোনো আলোর বিচ্ছুরণ ঘটছে যার প্রভাবে সিরিয়া, বসরার শহরের প্রাসাদগুলো উদ্ভাসিত হচ্ছে। (মুস্তাদরাকে হাকিম: ২/৬০০, মুসনাদে আহমাদ: ৫/২৬২)

পবিত্র কোরআনে মুহাম্মদ সা.-এর আগমন নিয়ে ঈসা আ.-এর সুসংবাদের ঘোষণা নিয়ে বর্ণিত হয়েছে—

وَ اِذۡ قَالَ عِیۡسَی ابۡنُ مَرۡیَمَ یٰبَنِیۡۤ اِسۡرَآءِیۡلَ اِنِّیۡ رَسُوۡلُ اللّٰهِ اِلَیۡكُمۡ مُّصَدِّقًا لِّمَا بَیۡنَ یَدَیَّ مِنَ التَّوۡرٰىۃِ وَ مُبَشِّرًۢا بِرَسُوۡلٍ یَّاۡتِیۡ مِنۡۢ بَعۡدِی اسۡمُهٗۤ اَحۡمَدُ ؕ فَلَمَّا جَآءَهُمۡ بِالۡبَیِّنٰتِ قَالُوۡا هٰذَا سِحۡرٌ مُّبِیۡنٌ ﴿۶

স্মরণ কর, যখন মারইয়ামের পুত্র ‘ঈসা বলেছিল, ‘হে বানী ইসরাঈল! আমি তোমাদের প্রতি আল্লাহর রাসূল, আমার পূর্ববর্তী তাওরাতের আমি সত্যায়নকারী এবং আমি একজন রসূলের সুসংবাদদাতা যিনি আমার পরে আসবেন, যার নাম আহমাদ।’ অতঃপর সে (অর্থাৎ ঈসা (আঃ) যাঁর সম্পর্কে সুসংবাদ দিয়ে ছিলেন সেই নবী) যখন তাদের কাছে সুস্পষ্ট নিদর্শন নিয়ে আসল, তখন তারা বলল, ‘এটা তো স্পষ্ট যাদু।’ ( সূরা সফ, আয়াত : ৬)