ঢাকা৫ই মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ২৩শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি ২১শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থ বানিজ্য
  2. আইন আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আবহাওয়া
  5. ইসলাম
  6. এভিয়েশন
  7. ক্যাম্পাস
  8. খেলা
  9. জব মার্কেট
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশবাংলা
  13. বিনোদন
  14. রাজনীতি
  15. লাইফস্টাইল
বিজ্ঞাপন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নো মেকআপ লুক সম্পর্কে ১০ তথ্য

জনবার্তা প্রতিবেদন
অক্টোবর ৩০, ২০২৩ ১:২৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

অনেকে মনে করেন নো মেকআপ লুক মানে কোনও মেকআপ ছাড়াই সাজানো। তবে এটি কিন্তু ভুল ধারণা। পর্যাপ্ত মেকআপ দিয়ে তবেই ক্রিয়েট করা হয় নো মেকআপ লুক। বিশ্বজুড়ে এই লুকের জনপ্রিয়তা বাড়ছে প্রতিনিয়তই। আমাদের দেশেও সম্প্রতি বেশ কয়েকজন তারকা বিয়ের সাজে বেছে নিয়েছেন নো মেকআপ লুক। বিশেষত্ব কী এই লুকের? জেনে নিন এ সম্পর্কে ১০ চমকপ্রদ তথ্য।

নো মেকআপ লুকের সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য হচ্ছে প্রাকৃতিকভাবেই আপনার ত্বকের সতেজ ও উজ্জ্বল ভাব ফুটিয়ে তোলা। পাশাপাশি আত্নবিশ্বাসও দোলা দিয়ে যাবে ত্বকে। মেকআপের আস্তরণে ত্বকের আসল সৌন্দর্য লুকিয়ে ফেলার বদলে নিজস্ব সৌন্দর্যেই উদ্ভাসিত করাই নো মেকআপ লুকের উদ্দেশ্য।

নো-মেকআপ মেকআপ লুক পেতে চাইলে শক্তিশালী স্কিন কেয়ার রুটিন প্রয়োজন। কারণ ত্বকের প্রাকৃতিক উজ্জ্বলতা বজায় রাখা এক্ষেত্রে ভীষণ জরুরি।

ত্বক পরিষ্কার, টোনিং এবং ময়শ্চারাইজ করার পরে একটি হালকা প্রাইমার দিয়ে ত্বকের বড় ছিদ্রগুলো সুনিপুণভাবে ঢেকে দেওয়া হয়। এতে একটি মসৃণ বেসও পাওয়া যায়।

নো মেকআপ লুকে ফাউন্ডেশন এড়িয়ে যা ওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। তবে হালকা স্তরে এটি লাগাতে চাইলে নো মেকআপ ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন। গায়ের রঙকে বদলে না ফেলে প্রাকৃতিক এবং ত্বক উজ্জ্বল দেখায় এই ফাউন্ডেশন।

একটি ত্রুটিহীন নো মেকআপ লুকের কৌশল হলো নিপুণভাবে ত্বকের দাগগুলো ঢেকে রাখা। এছাড়া চেহারা উজ্জ্বল দেখাতেও এই মেকআপ কার্যকর। এজন্য কনসিলার ব্যবহার করা হয়।

গালে সামান্য ব্লাশ যোগ করে প্রাকৃতিক আভা আনা যেতে পারে নো মেকআপে লুকে। ত্বকে রোদের আভা আনতে চাইলে নাকে একটি উষ্ণ টোনের ব্লাশের হালকা স্তর লাগান।

নো মেকআপ লুকে স্পার্কলি হাইলাইটার ব্যবহারের প্রয়োজন নেই। তরল হাইলাইটার বা স্ট্রবিং ক্রিম ব্যবহার করা যেতে পারে। মুখের কিছু পয়েন্টে হাইলাইটারের স্পর্শ থাকতে পারে। এছাড়া ত্বককে ভেতর থেকে উজ্জ্বল দেখাতে প্রাইমারের সাথে হাইলাইটার মিশিয়ে নিতে পারেন।

নো মেকআপ লুকে চোখের সাজ হয় সহজ এবং স্নিগ্ধ। চোখের পাতায় গোলাপি বা ক্রিম আইশ্যাডোর শেড ব্যবহার করা যেতে পারে। ওয়াটারলাইনে বাদামী আইলাইনার ব্যবহার করতে পারেন। কার্লিং মাস্কারা দিয়ে চোখের পাপড়ি কোট করে নিন।

ঠোঁটের প্রাকৃতিক রঙের যতটা সম্ভব কাছাকাছি লিপস্টিক ব্যবহার করে হয় নো মেকআপ সাজে। লিপস্টিক ব্যবহার করতে না চাইলে টিন্টেড লিপবাম ব্যবহার করতে পারেন।

নো মেকআপ লুকে সাধারণত আঙুলের সাহায্যে ব্লেন্ড করা হয় মেকআপ। এতে নরম ও স্নিগ্ধ হয় সাজ।