ঢাকা১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১২ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থ বানিজ্য
  2. আইন আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আবহাওয়া
  5. ইসলাম
  6. এভিয়েশন
  7. ক্যাম্পাস
  8. খেলা
  9. জব মার্কেট
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশবাংলা
  13. বিনোদন
  14. রাজনীতি
  15. লাইফস্টাইল
বিজ্ঞাপন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ভারী বৃষ্টিতে ধসে পড়ল দিল্লি বিমানবন্দরের ছাদ, নিহত ১

জনবার্তা প্রতিবেদন
জুন ২৮, ২০২৪ ৪:২১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ভারী বৃষ্টিতে ভারতে রাজধানী দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ১ নম্বর টার্মিনালের ছাদের একটি অংশ ধসে পড়েছে। এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আহত হয়েছে আরও অন্তত ৬ জন। তাদের সকলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, স্থানীয় সময় শুক্রবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে টার্মিনাল ১-এর পিক-আপ এবং ড্রপ এলাকায় দাঁড়িয়ে থাকা বেশ কিছু ট্যাক্সি ও গাড়ির ওপর ছাদের শীট এবং সাপোর্ট বিমগুলো ভেঙে পড়ে।

দমকলের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ‘সকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে, আমাদের কাছে ফোন আসে, দিল্লি বিমানবন্দরের টার্মিনাল ১-এর ছাদ ধসে পড়েছে। এরপরই তিনটি ফায়ার ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে।’

ঘটনাস্থলের বেশ কিছু ছবি ও ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। এতে দেখা যাচ্ছে ধসে পড়া ছাদের নিচে বেশ কয়েকটি গাড়ি আটকে আছে।

ভারতের কেন্দ্রীয় বেসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রী রামমোহন নাইডু জানিয়েছেন, ‘দিল্লি বিমানবন্দরে ১ নম্বর টার্মিনালের ছাদ ধসে পড়ার ঘটনার ওপর আমি ব্যক্তিগতভাবে নজর রাখছি। জরুরি উদ্ধারকর্মীরা ঘটনাস্থলে কাজ করছে। এছাড়াও এয়ারলাইন্সগুলোকে ১ নম্বর টার্মিনালের সমস্ত ক্ষতিগ্রস্ত যাত্রীদের সহায়তা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আহতদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। উদ্ধার অভিযান এখনও চলছে।’

দিল্লি বিমানবন্দরের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, ঘটনার ১ নম্বর টার্মিনাল থেকে সমস্ত ফ্লাইট সাময়িকভাবে স্থগিত রাখা হয়েছে। দুপুর ২টা পর্যন্ত সব ফ্লাইট বন্ধ থাকবে। নিরাপত্তাজনিত কারণে, চেক-ইন কাউন্টারগুলোও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে ছাদ ধসে পড়ার কারণ এখনও সরকারিভাবে জানানো হয়নি। তবে মনে করা হচ্ছে তীব্র ঝড়-বৃষ্টিতেই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার ভোর থেকেই দিল্লি এবং এর পার্শ্ববর্তী এলাকাগুলোতে তীব্র বজ্রপাত এবং বর্ষণ শুরু হয়। আবহাওয়া দপ্তার বলছে, মাত্র ৩ ঘণ্টায় ১৪৮.৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে দিল্লিতে। যার ফলে পুরো রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্ধতা ও ব্যাপক যানজট তৈরি হয়েছে।