ঢাকা১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১২ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থ বানিজ্য
  2. আইন আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আবহাওয়া
  5. ইসলাম
  6. এভিয়েশন
  7. ক্যাম্পাস
  8. খেলা
  9. জব মার্কেট
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশবাংলা
  13. বিনোদন
  14. রাজনীতি
  15. লাইফস্টাইল
বিজ্ঞাপন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ভিনিসিয়ুসের জোড়া গোলে প্যারাগুয়েকে উড়িয়ে ব্রাজিলের জয়

জনবার্তা প্রতিবেদন
জুন ২৯, ২০২৪ ১:০১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

কোপা আমেরিকায় কোস্টারিকার বিপক্ষে একের এক আক্রমণ পরও গোল না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়ে মাঠ ছেড়েছিল ব্রাজিল। তবে দ্বিতীয় ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়িয়েছে সেলেসাওরা। জোড়া গোল করেছেন ভিনিসিয়ুস, এরপর গোলের দেখা পেয়েছেন সাভিও এবং লুকাস পাকেতাও, ফলে প্যারাগুয়ের জালে ৪ গোল দিয়ে দুর্দান্ত এক জয় তুলে নিয়েছে দরিভাল জুনিয়রের শিষ্যরা। এই জয়ের কোয়ার্টার ফাইনালে দৌঁড়ে টিকে রইল ব্রাজিল। শেষ ম্যাচে কলোম্বিয়াকে হারাতে পারলে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হবে ব্রাজিল।

শনিবার (২৯ জুন) যুক্তরাষ্ট্রের নেভাডায় অ্যালিজায়ান্ট স্টেডিয়ামে প্যারাগুয়েকে ৪-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছে ব্রাজিল। প্রথমার্ধের খেলা শেষে ৩-০ গোলে এগিয়ে যায় সেলেসাওরা। জোড়া গোল করেছেন ভিনিসিউস জুনিয়র। একটি গোল করেছেন স্যাভিও। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে এক গোল হজম করলেও পেনাল্টি থেকে ব্যবধান বাড়ান লুকাস পাকেতা।

এদিন ম্যাচের শুরু আক্রমণ করতে থাকে ব্রাজিল। কিন্তু বার বার প্রতিপক্ষের ডি-বক্সে গিয়ে বল হারাচ্ছিলেন ভিনিসিয়ুসরা। ৩১তম মিনিটে তো হতাশই করেন লুকাস পাকেতা। বক্সে প্যারাগুয়ের ডিফেন্ডারের হাতে লাগার সুবাধে পাওয়া পেনাল্টি নিতে গিয়ে বারের বাইরে শট নেন তিনি।

তবে সেলেসাওদের বেশিক্ষণ আক্ষেপে পুড়তে দেননি ভিনিসিয়ুস। ৩৫তম মিনিটে গোলের খাতা খোলেন তিনি। বাঁ প্রান্ত ধরে আক্রমণে উঠে সতীর্থদের পাস দিয়ে ঢুকে পড়েন বক্সে। এক-দুই পাসের পর তাকে বল বাড়িয়ে দেন পাকেতা। প্যারাগুয়ের ডিফেন্ডার ও গোলরক্ষককে পরাস্ত করে নিখুঁত শটে বল জালে জড়ান ভিনিসিয়ুস।

এর ৮ মিনিট পর ব্যবধান বাড়ান স্যাভিও। প্যারাগুয়ের রক্ষণের ভুলে বক্সে বল পেয়ে জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক গোলটি করেন ২০ বছর বয়সী এ ফরোয়ার্ড। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে ভুলের মাশুল দিয়ে তৃতীয় গোলটি হজম করে প্যারাগুয়ে। গোলবারের সামনে থেকে বল ক্লিয়ার করতে দেরি করায় এগিয়ে গিয়ে বল জালে জড়ান ভিনিসিউস। এতে ৩-০ তে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় ব্রাজিল।

এদিকে ৩ গোলে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয়ার্ধ শুরুর পরই গোল হজম করে বসে ব্রাজিল। ৪৮ মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে দুর্দান্ত এক শট নেন প্যারাগুয়ের ওমর আলদারেত। এই শট ঠেকানোর সাধ্য ছিল না অ্যালিসন বেকারের, ফলে স্কোরলাইন হয় ৩-১। এরপর আরও বেশ কয়েকবার ব্রাজিলের রক্ষণে চাপ প্রয়োগ করেছে প্যারাগুয়ে, তবে শেষ পর্যন্ত গোলের দেখা পায়নি দলটি।

এদিকে প্যারাগুয়ে গোল না পেলেও নিজেদের চতুর্থ গলের দেখা ঠিকই পেয়েছে দরিভালের শিষ্যরা। ম্যাচের ৬৩ মিনিটে প্যারাগুয়ে নিজেদের বক্সে হ্যান্ডবল করায় পেনাল্টি পায় ব্রাজিল, এবার আর ভুল করেননি পাকেতা, ঠিকই লক্ষ্যভেদ করেছেন স্পটকিক থেকে। এরপর আর কোনো গোল না হওয়ায় ৪-১ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে ব্রাজিল।

ডি গ্রুপে একটি করে ম্যাচ খেলেছে দুই দেশ। ৬ পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে কলম্বিয়া, আর এখনো খাতা খুলতে পারেনি প্যারাগুয়ে। আর ২ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার দুইয়ে থাকল ব্রাজিল।