ঢাকা২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১১ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থ বানিজ্য
  2. আইন আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আবহাওয়া
  5. ইসলাম
  6. এভিয়েশন
  7. ক্যাম্পাস
  8. খেলা
  9. জব মার্কেট
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশবাংলা
  13. বিনোদন
  14. রাজনীতি
  15. লাইফস্টাইল
বিজ্ঞাপন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

যেভাবে দোয়া করা সুন্নত

ধর্ম ডেস্ক
আগস্ট ২, ২০২৩ ১:২৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

পৃথিবীর সবাই আল্লাহ তায়ালার মুখাপেক্ষী। তার হাতেই সব ক্ষমতা। তিনি সকল শক্তির আঁধার। এ জন্য মহামহিম সর্বময় ক্ষমতার অধিকারী আল্লাহর সামনে বিনয় ভরে নিজের অক্ষমতার কথা প্রকাশ করা এবং তার কাছে শক্তি-সামর্থ্য চাওয়া বান্দার জন্য পূর্ণতার পরিচায়ক।

আল্লাহর কাছে চাওয়ার মধ্যে লাজ-লজ্জা বা শরমের কিছু নেই। এটা হীনম্মন্যতারও বহিঃপ্রকাশ নয়। দোয়া অনুগত্য বা আল্লাহর দাসত্বের বহিঃপ্রকাশ। আল্লাহ তায়ালা বান্দার এমন বিনম্র মনোভাবকে খুব পছন্দ করেন। বান্দা যখন আল্লাহর কাছে তাঁর নিজের প্রয়োজন ও অভাবের কথা তুলে ধরে তখন আল্লাহ তায়ালা খুব খুশি হন।

পবিত্র কোরআনে বলা হয়েছে, ‘আর তোমাদের রব বলেছেন, ‘তোমরা আমাকে ডাক, আমি তোমাদের ডাকে সাড়া দিব’। -(সূরা মুমিন, আয়াত: ৬০)

আবূ যর রাযি.-এর সূত্রে ইমাম মুসলিম রহ. কতৃক বর্ণিত এক হাদীসে কুদসীতে এসেছে, ٍ ‘হে আমার বান্দারা, তোমরা সবাই পথভ্রষ্ট তবে যাকে আমি হেদায়েত করেছি সে ছাড়া। অতএব তোমরা আমার কাছে হেদায়েত তলব করো, আমি তোমাদেরকে সঠিক পথের সন্ধান দেব।

হে আমার বান্দারা, তোমরা সবাই ক্ষুধাতর্, তবে যাকে আমি অন্ন দিয়েছি সে ছাড়া। অতএব তোমরা আমার কাছেই খাদ্য চাও, আমি তোমাদেরকে খাওয়াব।

হে আমার বান্দারা, তোমরা সবাই বস্ত্রহীন তবে যাকে আমি বস্ত্র পরিয়েছি সে ছাড়া। অতএব আমার কাছেই তোমরা পরিধেয় তলব করো, আমি তোমাদেরকে পরিধান করাব’(মুসলিম)।

আল্লাহর কাছে চাওয়ার বা দোয়া করার কিছু সুন্নাহ সম্মত পদ্ধতি রয়েছে। এখানে তা তুলে ধরা হলো-

>> অজুর করে কিবলামুখী হয়ে দোয়া করা। দোয়া শুরু করার আগে আল্লাহ তায়ালার প্রশংসা করা এবং নবীজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ওপর দরুদ শরিফ পড়া। ( তিরমিজি, হাদিস, ৩৪৭৬)

>> নিজের দুই হাত বুক বরাবর সামনে রাখা। (মুসান্নাফে আব্দুর রাজ্জাক, হাদিস, ৩২৩৪)

>> হাতের তালু আকাশের দিকে প্রশস্ত করে রাখা। (তাবরানী কাবীর, হাদিস, ৩৮৪২)

>> দু’হাতের মাঝখানে সামান্য ফাঁক রাখা। ( হিসনে হাসীন, ২৭)

>> হাতের আঙ্গুলগুলো স্বাভাবিক ফাঁক রাখা। (ত্বহত্বাবী, ২০৫)

>> মন দিয়ে কাকুতি-মিনতি করে দোয়া করা। ( সূরা আরাফ, আয়াত, ৫৫)

>> আল্লাহর কাছে দোয়ার বিষয়টি বিশ্বাস ও দৃঢ়তার সঙ্গে বারবার চাওয়া। (বুখারি, হাদিস, ৬৩৩৮)

>> একাগ্রতার সঙ্গে নিঃশব্দে দোয়া করা মুস্তাহাব। তবে দোয়া সম্মিলিতভাবে হলে কারও নামাজ বা ইবাদতে বিঘ্ন সৃষ্টির আশঙ্কা না থাকলে সশব্দে দোয়া করাও যাবে। ( সূরা আরাফ, ২০৫, বুখারি, ২৯৯২)

>> আল্লাহ তায়ালার প্রশংসা, দরুদ সালাম ও আমিন বলে দোয়া শেষ করা। ( তাবরানি কাবির, হাদিস, ৫১২৪, মুসান্নাফে আব্দুর রাজ্জাক, হাদিস, ৩১১৭, আবু দাউদ, ৯৩৮)

>> দোয়া শেষ করে দুই হাত দিয়ে পুরো মুখ মুছে নেওয়া। ( আবু দাউদ, হাদিস, ১৪৮৫)