ঢাকা২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১১ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থ বানিজ্য
  2. আইন আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আবহাওয়া
  5. ইসলাম
  6. এভিয়েশন
  7. ক্যাম্পাস
  8. খেলা
  9. জব মার্কেট
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশবাংলা
  13. বিনোদন
  14. রাজনীতি
  15. লাইফস্টাইল
বিজ্ঞাপন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দাপুটে বোলিংয়ে অ্যান্টিগা টেস্টে উত্তেজনা ছড়াল বাংলাদেশ

জনবার্তা প্রতিবেদন
জুন ১৯, ২০২২ ১০:০০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বাংলাদেশ টেস্ট দলে মুমিনুল অধ্যায় শেষ হওয়ার পর সাকিব আল হাসানের তৃতীয় অধ্যায়ের শুরুটা সে অর্থে ভালো হয়নি। সাকিবের অধিনায়কত্বের প্রত্যাবর্তনে অ্যান্টিগায় নিজেদের প্রথম ইনিংসে মাত্র ১০৩ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট হাতে খানিক লড়াই করে উইন্ডিজের সামনে ৮৪ রানের লক্ষ্য দিয়েছে টাইগাররা। অথচ এমন ম্যাচেও শেষদিকে উত্তেজনা ছড়িয়েছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

লক্ষ্যটা মাত্র ৮৪ রানের। অথচ এই টার্গেটকেই ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যানদের সামনে যেন পাহাড়সম বানিয়ে দিয়েছেন সফরকারী পেসাররা। ম্যাচের তৃতীয় দিনের শেষ সেশনের শেষ ঘণ্টায় ব্যাট করতে নামা স্বাগতিকদের একপাশ থেকে চেপে ধরেন মুস্তাফিজুর রহমান। অন্যপাশ দিয়ে টপ অর্ডার ধসিয়ে দেন খালেদ আহমেদ। দিনের খেলা শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ৪৯ রান তুলেছে উইন্ডিজ।

জয়ের জন্য বাংলাদেশ দলের প্রয়োজন আর ৭ উইকেট। উইন্ডিজের দরকার ৩৫ রান। জার্মেইন ব্ল্যাকউড ৩৬ বলে ১৭ এবং জন ক্যাম্পবেল ৪২ বলে ২৮ রানে রোববার ম্যাচের চতুর্থ দিন শুরু করবেন।

উইন্ডিজের ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে বল হাতে আসেন খালেদ। ওভারের প্রথম বলটি ব্যাক অব লেন্থের, বেরিয়ে যাচ্ছিল লেগ সাইড দিয়ে। খেলতে গিয়ে ভুল করে বসেন ওপেনার ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট। ব্যাটের কানায় লেগে যায় উইকেটের পেছনে। বাঁদিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে তালুবন্দি করলেন নুরুল হাসান সোহান। ২ বলে ১ রান করেন উইন্ডিজ অধিনায়ক।

একই ওভারে দ্বিতীয় আঘাত খালেদের। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে ক্রিজে এসেই দ্বিতীয় বলে দৌড়ে দুই নেন রেমন রেইফার। পরের বলে ডট দিয়ে ধরা পড়েন খালেদের পঞ্চম বলে। ব্যাক অব লেন্থের এক্সট্রা বাউন্স বল। রেইফার ছেড়ে দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু দেরি করে ফেলেন। তার গ্লাভসে লেগে বল যায় উইকেটের পেছনে। সোহান ধরতে ভুল করেননি। ৪ বলে ২ রান নেন রেইফার। উইন্ডিজ ৩ রানে ২ উইকেট হারায়।

নিজের করা তার পরেই ওভারে আবার সাফল্য পান খালেদ। খালেদের আগের বলটি বোনারের ব্যাট ঘেঁষে যায়। জোরালো আবেদনে সাড়া দেননি আম্পায়ার। বাংলাদেশ চ্যালেঞ্জ জানায়। কিন্তু ব্যাটে না লাগায় রিভিউ হারায়। এক বল পরেই বলের লাইন মিস করে বোল্ড হন বোনার। ৬ বলে শূন্য রানে ফেরেন এই ব্যাটসম্যান। খালেদের তিনে তিন!

এরপর দলকে চাপমুক্ত করার দায়িত্ব নেন ক্যাম্পবেল আর ব্ল্যাকউড। তাতে কিছুটা সফলই বলতে হবে তাদের। স্বাগতিকদের আর কোনো বিপদে পড়তে দেননি দুজন। অবিচ্ছেদ্য ৪০ রানের পার্টনারশিপে তৃতীয় দিন শেষ করেছেন তারা। যেখানে ৩ উইকেট হারিয়ে ৪৯ রান করেছে উইন্ডিজ।

ম্যাচের চতুর্থ দিনের শুরুতেই গলার কাটা হয়ে বিঁধে থাকা এই জুটি ফেরাতে পারলে ম্যাচের ভাগ্য বদলে দিতে পারবে বাংলাদেশ দল। আপাতত সেই রোমাঞ্চের অপেক্ষায় ক্রিকেট সমর্থকরা।