ঢাকা২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১১ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থ বানিজ্য
  2. আইন আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আবহাওয়া
  5. ইসলাম
  6. এভিয়েশন
  7. ক্যাম্পাস
  8. খেলা
  9. জব মার্কেট
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশবাংলা
  13. বিনোদন
  14. রাজনীতি
  15. লাইফস্টাইল
বিজ্ঞাপন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নয়াপল্টনের ঘটনার নিন্দা জানিয়ে যা বললেন চরমোনাই পীর

জনবার্তা প্রতিনিধি
ডিসেম্বর ৭, ২০২২ ১১:৫৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের ভূমিকার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। সংগঠনের আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করিম (চরমোনাই পীর) বলেছেন, ‘বহুদলীয় রাজনীতি এবং ক্ষমতাসীন দলের কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে মিছিল-সমাবেশ করা এমনকি ক্ষমতা পরিবর্তনের চেষ্টা করা বাংলাদেশের সংবিধান মতেই বিধিসিদ্ধ।’

বুধবার এক বিবৃতিতে তিনি একথা বলেন। চরমোনাই পীর আরও বলেন, ‘একটি স্বাধীন দেশের রাজনীতিতে বিরোধী দলগুলো মিছিল-সমাবেশ করবে এটা খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার এবং সেসব সমাবেশে নিরাপত্তা দেয়া, সমাবেশে যাতায়াত সহজ করা যে কোনো সভ্য রাষ্ট্রের সরকারের মৌলিক দায়িত্বের অংশ।’

চরমোনাই পীর বলেন, ‘কিন্তু দেখা যাচ্ছে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার একটি গণপ্রজাতন্ত্রী স্বাধীন রাষ্ট্রের এসব মৌলিক অধিকারকে নির্মমভাবে হরণ করেই যাচ্ছে। তারা বিরোধী দলের শান্তিপূর্ণ সমাবেশগুলোতে পরোক্ষ ও প্রত্যক্ষভাবে বাধাগ্রস্ত করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় আসন্ন ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় বিরোধী দলের সমাবেশকে কেন্দ্র করে তারা একটি উত্তেজনাপূর্ণ সহিংস পরিস্থিতি তৈরি করেছে। স্বাধীনতার ৫২তম বছরে এসে বিরোধীদের সমাবেশ করার মতো স্বাভাবিক বিষয়কে কেন্দ্র করে যে যুদ্ধাবস্থা তৈরি করা হয়েছে, যেভাবে ধরপাকড় করা হচ্ছে, যেভাবে হামলা-মামলা ও গুলি করে বিরোধী দলের নেতাকে হত্যা করা হচ্ছে তা অকল্পনীয়। আমরা এর তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করছি।’

মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করিম বলেন, ‘আমরা সরকারি দলকে আহ্বান করব, বিরোধীদের যে কোনো শান্তিপূর্ণ আন্দোলনকে সহায়তা করুন। আগামী ১০ ডিসেম্বরের সমাবেশকে বাধামুক্ত-স্বাচ্ছন্দ্য করতে যা যা করণীয় তাই করুন।’